কদম ফুল নিয়ে কবিতা ২০২২

কদম ফুল নিয়ে কবিতা
কদম ফুল নিয়ে কবিতা

স্বাগতম সবাইকে! আজকে একটি কদম ফুল নিয়ে কবিতা শেয়ার করবো। যদিও আমি কবি না তার পরেও চুল দাড়ি বড় বড় করে কবি কবি ভাব নিয়ে থাকি।

শুধু ভাব নিয়ে  থাকলে যদি কাব্য হয়ে যেত তাহলে আমি সেরা কয়েকজন কবির তালিকায় থাকতাম। আমি লিখতে না পারলেও পড়তে বেশ পটু। আমার পছন্দের এমনই একটি কবিতা আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।  চলুন দেখে নিই একটি কদম ফুল নিয়ে প্রেমের কবিতা।

কদম ফুল নিয়ে কবিতা

কদম ফুল নিয়ে কবিতা
কদম ফুল নিয়ে কবিতা

আগেই বলে নিচ্ছি আমি এই কবিতার লেখক না বা দাবি করছি না। আমি শুধু আমার পছন্দের কবিতা সকলের সাথে শেয়ার করতে চাচ্ছি।

আমরা সকলেই রবী ঠাকুর কে চিনি। কাব্য প্রেমিরা তার লেখায় অন্যরকম ভালোবাসার আবেশ খুঁজে পায়। নিচে তাঁরই জাদুর হাতে লিখা একটি কবিতা শেয়ার করছি। আপনারা বিভিন্ন জন বিভিন্ন রকমের, বিভিন্ন লেখকের কবিতা ভালোবেসে থাকেন। আপনাদের পছন্দের সকল কবিদের কদম ফুল নিয়ে কবিতা দেখতে পারবেন আজকের পোষ্ট এ।

কদম ফুল নিয়ে প্রেমের কবিতা

বর্ষা কালে অলস বৃষ্টির সময় ঘরে বসে প্রেম যুগল প্রেম লীলায় মেতে উঠে। গাছে গাছে কদম ফুলের বিস্তার আর বাতাসে তার হালকা উপস্থিতি মনের ভিতর ঝড় তুলে দেয়। মনের ভিতর বাজতে থাকে কদম ফুল নিয়ে প্রেমের কবিতা। 

আমার মতো অনেক হতভাগা শুধু খুঁজে যায় কিসের যেন অভাব, কী যেন নেই! অবশেষে যখন বুঝতে পারে কদম ফুল নিয়ে প্রেমের কবিতা গুলোর কমতি। মনে আর খুশির সীমা থাকে না।

বর্ষার কদম ফুল নিয়ে কবিতা

খিচুড়ি আর মাছ ভাঁজা নিয়ে জানালার পাশে বসে হাওয়ায় দুলতে থাকা কদম ফুলের দিকে তাকিয়ে খাওয়ার মজা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না। এর সাথে যদি বর্ষার কদম ফুল নিয়ে কবিতা গুলো সাথে থাকে তাহলে তো কথাই নেই।

বৃষ্টির শেষে মেঘলা আকাশের নিচে বাইরে বেরিয়ে যখন কদম ফুলের দিকে তাকাবেন। আপনার মনে আপনা আপনিই বর্ষার কদম ফুল নিয়ে কবিতা দুলা দিয়ে উঠবে।

অনেকে যারা শহরে বেড়ে উঠছেন তাঁরা হয়ত আমার অনুভূতির সাথে রিলেট করতে পারছেন না। কিন্ত গ্রামের সকলেই ফিলটা নিতে পারছে। আপনাদের বর্ষা কালে গ্রামে এসে এটি উপভোগ করা উচিত। কিন্ত কাঁদা থেকে সাবধান 🙂

বাদল-দিনের প্রথম কদম ফুল

—রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বাদল-দিনের প্রথম কদম ফুল করেছ দান,

আমি দিতে এসেছি শ্রাবণের গান॥

মেঘের ছায়ায় অন্ধকারে

রেখেছি ঢেকে তারে

এই-যে আমার সুরের ক্ষেতের

প্রথম সোনার ধান॥

আজ এনে দিলে, হয়তো দিবে না কাল–

রিক্ত হবে যে তোমার ফুলের ডাল।

এ গান আমার শ্রাবণে শ্রাবণে তব বিস্মৃতিস্রোতের প্লাবনে

ফিরিয়া ফিরিয়া আসিবে তরণী বহি তব সম্মান॥

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*